শ্রীমদ্ভগবদগীতার প্রকৃত ইতিহাস।


শ্রীমদ্ভগবদগীতার প্রকৃত ইতিহাস নিজে জেনে রাখুন এবং অন্যদের শেয়ার করে জানাবেন সকল প্রকার অপপ্রচারের বিরুদ্ধে সোচ্চার হোন ।


senhor-krishna-wallpaper
গীতা মহাভারতের ভীষ্মপর্বের অন্তর্গত । এই পর্বের ২৫-৪২ নম্বর অধ্যায়কে গীতা হিসেবে মর্যাদা দেয়া হয় । এই গ্রন্থ মহাভারতের অংশ হয়েও আলাদা গ্রন্থের মর্যাদা পেয়ে থাকে । এর অধ্যায় সংখ্যা ১৮ আর শ্লোক সংখ্যা ৭০০। মূলত ইতিহাসে সবার প্রথম মহাভারত থেকে একে পৃথক গ্রন্থ হিসেবে আলাদা করে এর ভাষ্য রচনা করেন আদি হিন্দুধর্মগুরু আদি শঙ্করাচার্য (অদ্বৈতবাদের উপর) । ধারণা করা হয় ৭৮৮-৮২০ খ্রিস্টাব্দের মাঝে কোন সময়ে তিনি এই গীতাভাষ্য রচনা করেন। এর পরবর্তী সময়ে দ্বিতীয় ভাষ্যকার হিসেবে রামানুজের (ভক্তিবাদের উপর) নাম পাওয়া যায়। এর পরে মদ্ধ্বাচার্য (দ্বৈতবাদের উপর) ১১৯৯-১২৭৬ খ্রিস্টাব্দের মাঝামাঝি সময়ে গীতাভাষ্য রচনা করেন। শৈব ধর্মের অভিনবগুপ্ত ১০ম-১১শ শতকের মাঝে গীতাভাষ্য রচনা করেন শৈব মতের উপর ভিত্তি করে নাম দেয়া হয় গীতার্থ-সমগ্র । তাছাড়া নিম্বার্ক ১১৬২ ও ভল্লভ ১৬৭৯ খ্রিস্টাব্দে গীতাভাষ্য রচনা করেন। এইসময়ের মাঝে বিদ্যাধিরাজ তীর্থ, মধুসূদন সরস্বতি,বনমালি মিশ্র প্রভৃতির নাম পাওয়া যায়। নদীয়ার বিখ্যাত গৌরীয় বৈষ্ণব আন্দোলনের জনক শ্রী-চৈতন্য মহাপ্রভু ১৪৮৬ খ্রিস্টাব্দে গীতাভাষ্য রচনা করেন। এছাড়াও ধনেশ্বর ১২৭৫-১২৯৬ খ্রিস্টাব্দে তার ধনেশ্বরী বইতে মারাঠি ভাষায় গীতা অনুবাদ করেন ও ভাষ্য রচনা করেন। উপরোক্ত ভাষ্যগুলোই গীতার প্রাচীন ভাষ্য হিসেবে স্বীকৃত । এ ছাড়াও আধুনিক যুগে গান্ধী, শ্রী-অরবিন্দ সহ অনেকে গীতাভাষ্য রচনা করেন। গীতার প্রথম ইংরেজি অনুবাদ করেন ( আমি আবারও বলছি প্রথম ইংরেজি অনুবাদ প্রথম অনুবাদ নয় , প্রথম ভাষ্য রচনা করেন আদি শঙ্করাচার্য উপরেই দেখিয়েছি ) করেন চার্লস উইকিন্স ১৭৮৫ সালে। তাই উইকিন্সের অনুবাদ ইংরেজিতে প্রথম অনুবাদ হলেও তিনি একে প্রথম পৃথক গ্রন্থে পরিণত বা অনুবাদ করেন নি করেছিলেন আদি শঙ্করাচার্য । তাই অজ্ঞ লোকদের অজ্ঞতা দূর হোক এই কামনা করি। আর মুদ্রিত না থাকলেও তার পূর্বেই পুঁথি আকারে গীতা ছিল। তাই মুদ্রণ করা মুদ্রণ যন্ত্রের আবিস্কারের সাথে সম্পর্কযুক্ত। প্রথম মুদ্রণ করলে তিনিই প্রথম গ্রন্থের অনুবাদ আর ভাষ্য রচনা করেন তা যুক্তির দিক দিয়ে হাস্যকর। এর পূর্বে গীতা না থাকলে গীতা ভাষ্য রচনা হত কি করে ? যাই হোক ঈশ্বর সকলকে জ্ঞান দান করুন।
রেফারেন্সঃ http://en.wikipedia.org/wiki/Bhagavad_Gi

Advertisements

2 comments on “শ্রীমদ্ভগবদগীতার প্রকৃত ইতিহাস।

  1. Pingback: শ্রীমদ্ভগবদ্গীতা সূচীপত্র। | সনাতন ধর্মতত্ত্ব

  2. Pingback: শ্রীমদ্ভগবদ্গীতা পাঠ সূচী। | সনাতন ধর্মতত্ত্ব

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s