দুর্যোধন পাণ্ডবদের আগে স্বর্গে পৌঁছেছিলেন …..কেন এবং কিভাবে ?


Image result for Duryodhan

মহাভারতে আছে…………….

দুর্যোধন পাণ্ডবদের আগে স্বর্গে পৌঁছেছিলেন …..কেন?

দুর্যোধন আজীবন অধার্মিক, অত্যাচারী, নিষ্ঠুর, স্বজনবিরোধী, দাম্ভিক ও দুর্বিনীত। তাহলে? কোন মনুষ্যোত্তর গুণে তাঁর এই সৌভাগ্য?
এর উত্তর আছে সেই কুরুক্ষেত্রের প্রান্তরে।
যুদ্ধের শেষে সেই শ্মশানভূমির একাকীত্বে অশক্ত শরীরে দুর্যোধন যাপন করেছিলেন জীবনের শেষ ত্রিশ ঘন্টা। তাঁর জঙ্ঘাস্থি ছিল স্থানচ্যুত, সে যন্ত্রণা তিনি কতক্ষণ ভোগ করেছিলেন জানা নেই, তারপর তাঁর নিম্নাঙ্গ নিশ্চই অবশ হয়ে গেছিল। চলৎশক্তিহীন অসহায় মুমূর্ষু মানুষটি সেই দুর্জয় শীতেও আকণ্ঠ পিপাসায় একটু জলের জন্য হাহাকার করেছিলেন। কেউ শোনেনি। বহু ক্লেশের মধ্য দিয়ে দুর্যোধন জেনেছিলেন জীবনের মর্ম। মৃত্যুর সাথে সংঘর্ষে তাঁর জীবনীশক্তির যখন আর প্রায় কিছু অবশিষ্ট নেই, তখন এলেন অশ্বত্থামা। প্রায় সংজ্ঞাহীন অবস্থায় দুর্যোধন শুনলেন গুরুপুত্রের ভীষণ প্রতিজ্ঞা। আর্তকণ্ঠে নিষেধ করলেন তিনি, না, অশ্বত্থামা… না…। তাঁর অত্যুচ্চ অহংকারের হর্ম্য তখন চুরমার হয়ে ধুলোয় মিশেছে। পান্ডবদের সাথে বৈরীতা হয়েছে অন্তর্হিত। তাঁর ক্ষীণ কণ্ঠের আর্তি অশ্বত্থাম…ার কানে যায় নি। প্রহরকালের মধ্যে তিনি এনে হাজির করেছেন দৌপদীর পাঁচ কিশোরপুত্রের ছিন্নমুন্ড। নীরন্ধ্র অন্ধকারেও দুর্যোধন তা স্পর্শ করেই আর্তনাদ করে উঠলেন, একি করলে গুরুপুত্র? ওরা যে আমার উত্তরপুরুষ!

রাত্রি ভোর হবার আগে দুর্যোধনের পরিজন এলেন শেষ দর্শনে। মাতা গান্ধারীকে দেখে দুর্যোধন বললেন, তোমার জন্যেই বোধহয় আমি অপেক্ষায় ছিলাম মা। তোমার পায়ের ধুলো আমার মাথায় দিয়ে এবার পাপীপুত্রের জননী হবার কলঙ্ক থেকে মুক্ত হও তুমি। আর পাপিষ্ঠকে যদি মার্জনা করতে পারো তাহলে আশীর্বাদ কোরো, আগামী জন্মে আবার যেন তোমায় মা বলে ডাকার সৌভাগ্য হয়।
পুত্রের দুরবস্থায় আজীবন ধর্মাচারিণীরও হৃদয় টলেছিল। বন্ধনমুক্ত চক্ষে জ্বলে উঠেছিল প্রতিশোধের আগুন। মায়ের অগ্নিসম প্রতিজ্ঞা রোধ করে মুমূর্ষু দুর্যোধন চিৎকার করে বলে উঠলেন, না মা না, তুমি পাণ্ডবদের অভিশাপ দিও না। ওরা যে তাহলে ধ্বংশ হয়ে যাবে। আমার আর কোন দ্বিধা নেই। আমাকে শেষ যাত্রার অনুমতি দাও। আর দেখো সে যাত্রা যেন পাণ্ডবদের সমাধির উপর দিয়ে না যায়।

অন্তিমলগ্নে তিনি অন্তর থেকে মার্জনা করেছিলেন পাণ্ডবদের। তাই তাঁর স্থান হয়েছিল মানবাকাঙ্খিত অমৃতলোকে।

কৃতজ্ঞতায়ঃ- Prithwish Ghosh

Advertisements

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s