ভক্তি রসামৃতসিন্ধু গ্রন্থ থেকে বিষাদ, গ্লানি আদির সংজ্ঞা


বিষাদ —
বিষাদের  সংজ্ঞা : নিম্নোক্ত তিনটি কারণ হতে যে অনুতাপ জন্মে তাকে বলে বিষাদ।
বিষাদের কারণ তিনটি :
১)  ইষ্টবস্তুর অপ্রাপ্তি  ২)  প্রারদ্ধ কার্যের অসিদ্ধি বিপত্তি  ৩)  অপরাধ
লক্ষণ :- উপায় ও সহায়ের অনুসন্ধান, চিন্তা, রোদন, বিলাপ, শ্বাস, বৈবর্ণ্য, ও মুখশোষাদি প্রকাশ পায়।
—ভ. র.সিন্ধু : দঃবিভাগ ৪/১৪-২০

দৈন্য —
দৈন্যের সংজ্ঞা : নিম্নোক্ত তিনটি কারণ হতে যে স্ববিষয়ে অতি নিকৃষ্টতা বুদ্ধি তাকে বলে দৈন্য।
দৈন্যের তিনটি কারণ :
১)  দুঃখ ২)  ত্রাস ৩)  অপরাধ
লক্ষণ : চাটুকারীতা, হৃদয়ের মান্দ্য অর্থাৎ অপটুতা, মালিন্য, চিন্তা ও জাড্যতার প্রকাশ পায়।
—ভ. র.সিন্ধু : দঃ বিভাগ৪/২১-২৪

গ্লানি —
গ্লানির সংজ্ঞা : নিম্নোক্ত তিনটি কারণ দ্বারা তার ক্ষয় হলে যে দুর্বলতা জন্মে তাকে বলে গ্লানি।
গ্লানির তিনটি কারণ :
১)  শ্রম ২)  মনঃপীড়া ৩)  রতিক্রীড়াদি
লক্ষণ : কম্প, অঙ্গ জাড্য, বৈবর্ণ্য, কৃষতা ও নেত্রঘূর্ণাদি প্রকাশ পায়।
—ভ. র.সিন্ধু : দঃ বিভাগ ৪/২৬-৩২

ওজ —
ওজের সংজ্ঞা : দেহে বল ও পুষ্টিকারী সোমাত্মক অর্থাৎ চন্দ্রদেবতা, শুক্র হতে উৎকৃষ্ট ধাতু বিশেষকে বলে ওজ।
—ভ. র.সিন্ধু : দঃ বিভাগ ৪/২৬

শ্রম —
শ্রমের সংজ্ঞা : পথ, নৃত্য ও রমনাদি জনিত যে খেদ তাকে বলে শ্রম।
লক্ষণ : নিদ্রা, স্বেদ, অঙ্গ সংমর্দ্দন, জৃম্ভা ও দীর্ঘ শ্বাস প্রকাশ পায়।
— ভ. র.সিন্ধু : দঃ বিভাগ ৪/৩১-৪০

গর্ব —
গর্বের সংজ্ঞা : সোভাগ্য, রূপ, তারুণ্য,  গুণ, সর্ব্বোত্তমাশ্রয় ও ইষ্ট লাভাদি হেত ুঅন্যের প্রতি যে অবহেলা তাকে বলে গর্ব।
লক্ষণ : সোপাহাস বাক্য, লীলাবশতঃ উত্তর না দেওয়া, স্বাভিপ্রায়াদির গোপন, নিজাঙ্গ দর্শন ও অন্যের বাক্যে অশ্রবণাদি প্রকাশ পায়।
—ভ. র.সিন্ধু : দঃ বিভাগ ৪/৪১-৪৮

শঙ্কা —
শঙ্কার সংজ্ঞা : স্বীয় চৌর্য্যাপবাদ,অপরাধ, ও পরের ক্রুরতাদিবশতঃ যে নিজের অনিষ্ট অনুমান তাকে বলে শঙ্কা।
লক্ষণ : মুখশোষ, বৈবর্ণ্য, দিক-নিরীক্ষণ ও পলায়ণাদি প্রকাশ পায়।
—ভ. র.সিন্ধু : দঃ বিভাগ ৪/৪৯-৫৩

ত্রাস —
ত্রাসের সংজ্ঞা : ১) বিদ্যুৎ, ভয়ানক প্রাণী ও শব্দাদি থেকে যে ক্ষোভ তাকে বলে ত্রাস।
২) পূর্ব্বাপর বিচার ব্যতিরেকে যে মনকম্প অর্থাৎ যে হৃদয়-ক্ষোভ সহসা গাত্রোৎকম্প ঘটায় তাকে বলে ত্রাস।
লক্ষণ : পার্শস্থ ব্যক্তির অবলম্বন, রোমাঞ্চ, স্তম্ভ, কম্প ও ভ্রমাদি প্রকাশ পায়।
—ভ. র.সিন্ধু : দঃ বিভাগ ৪/৫৪-৫৮

ভয় —
ভয়ের সংজ্ঞা : পূর্ব্বাপর বিচার জনিত হলে তাকে বলে ভয়।
—ভ. র.সিন্ধু : দঃ বিভাগ ৪/৫৭-৫৮

আবেগ —
আবেগের সংজ্ঞা : চিত্তের সম্ভ্রমকে আবেগ বলে।
লক্ষণ : প্রিয়, অপ্রিয়, অগ্নি, বায়ু, বর্ষা, উৎপাত, হস্তী ও শত্রুতায় প্রকাশ পায়।
—-প্রত্যেক লক্ষণের পৃথক পৃথক দৃষ্টান্ত ও লক্ষণ–
♦ প্রিয়োত্থ আবেগ হতে পুলক প্রকাশিত হয়। (পুলক,প্রিয়ভাষণ,চাপল্য ও অভ্যুত্থান)
♦অপ্রিয়োত্থ আবেগ হতে ভূমি পতন, ভ্রমাদ ও চিৎকারাদি প্রকাশ পায়।
♦অগ্নিজ আবেগ হলে বিপর্য্যস্ত গতি,কম্প, নয়ন মুদ্রণ ও অশ্রু প্রকাশ পায়।
♦বায়ুজ আবেগ হলে অঙ্গাবরণ, দ্রুত গমন ও চক্ষু মার্জনাদি প্রকাশ পায়।
♦বৃষ্টি জনিত আবেগ হলে ধাবন, ছত্র গ্রহণ ও গাত্র সংকোচনাদি প্রকাশ পায়।
♦উৎপাতজ আবেগ হলে মুখবৈবর্ণ্য, বিস্ময় ও উচ্চ কম্পাদি প্রকাশ পায়।
♦গজ জনিত আবেগে পলায়ণ, উৎকম্প, ত্রাস ও পশ্চাদ ভাগে দর্শনাদি প্রকাশ পায়।
♦শত্রু জনিত আবেগে বর্ম্ম-শস্ত্রাদি গ্রহণ ও গৃহ হতে অন্যত্র গমনাদি প্রকাশ পায়।
—ভ. র.সিন্ধু : দঃ বিভাগ ৪/৫৯-৬৩
মদ —
মদ-এর সংজ্ঞা : বিবেকহর উল্লাসকেই মদ বলে।
মদ দুইপ্রকার–
১)  মধুপান জনিত মদ
২)  কন্দর্প জনিত মদ
ক) মধুপান জনিত মদ-এর লক্ষণ : গতি, অঙ্গ ও বাক্যেও স্খলন
খ) কন্দর্প জনিত মদ-এর লক্ষণ : নেত্রঘূর্ণা ও নেত্রলৌহাদি
—ভ. র, সিন্ধু : দঃ বিভাগ ৪/৩১-৪০

Advertisements

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s